Skip to content

চা-কফি পান করলে যা হয়

সকালে খালি পেটে চা-কফি পান করলে যা হয়

 

চা-কফির মগে চুমুক না দিলে অনেকেরই দিন শুরু হয় না। অনেকে তো খালি পেটেই চা-কফি খাওয়া শুরু করেন। তবে জানেন কি? এতে শরীরের কতটা ক্ষতি হয়? এজন্য বিশেষজ্ঞদের মতে, খালি পেটে চা-কফি খাওয়ার আগে অন্তত এক মগ পানি পান করা উচিত। তা না হলে একাধিক রোগের প্রকোপও বৃদ্ধি পায়। তবে এর সমাধান কী?

আসলে আগে পানি পান না করে চা পান করলে শরীরে অ্যাসিডের মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে গ্যাস-অম্বল, হজমসহ পেটের নানাবিধ সমস্যা বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া চা পানের আগে পানি পান করলে আলসারের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।

পানি পান করার সঙ্গে সঙ্গেই পাকস্থলীতে উপস্থিত অ্যাসিড পানির সঙ্গে মিশে যায়। ফলে চা পানের পর শরীরে অ্যাসিডের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। এক্ষেত্রে আরও বেশ কিছু শারীরিক সমস্যা হতে পারে-

>> কফি এবং চা দু’টোতেই ট্যানিন নামে একটি রাসায়নিক রয়েছে। যা দাঁতের রঙে পরিবর্তন ঘটায়। চা পান করলে দাঁতে একটি রাসায়নিক স্তর তৈরি হয়। তাই কফি বা চা খাওয়ার ১৫ মিনিট আগে অন্তত এক গ্লাস পানি পান করা উচিত।

>> অনেকেই ভেবে থাকেন, সকালে এক কাপ চা বা কফি পান করলে শরীর সতেজ হবে! তবে ধারণাটি ভুল। খালি পেটে চা বা কফি খাওয়া শরীরকে পানিশূন্য করে তোলে। সবচেয়ে ভালো হয়, কোনো খাবার খেয়ে চা পান করা। তা যদি না করেন, তবে এক গ্লাস পানি অবশ্যই পান করতে হবে।

>> কফি বা চা পান করার পর অনেকের পেট জ্বালা-পোড়া করতে পারে। এটি অ্যাসিডিক প্রকৃতির কারণে ঘটে। কফি এবং চায়ের পিএইচ মান যথাক্রমে ৫ ও ৬ হয়। আর পানির পিএইচ মান ৭। চা বা কফি পান করার আগে এক গ্লাস পানি পান করা অ্যাসিড উত্পাদন কমায়।

>> কফি বা চা পান করলে পেটে আলসার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। বিশেষ করে দুধ-চিনি মেশানো চা বা কফি খেলে। চিকিৎসকদের মতে, দুধ চায়ে উচ্চমাত্রায় অ্যাসিড থাকে। যা পেটে আলসার উত্পাদন করে। চা পাকস্থলীতে যাতে অ্যাসিড তৈরি না করে, এজন্য খালি পেটে অবশ্যই এক গ্লাস পানি পান করুন।

হোম
ই-শো
লাইভ টিভি
নামাজ শিক্ষা
গেইমস
চাকুরি